ফারুকের শারীরিক অবস্থার উন্নতি, কেবিনে স্থানান্তর

গত মঙ্গলবার দুপুরেই প্রথম আলোকে ফারুকের স্ত্রী জানিয়েছিলেন, তাঁর স্বামী বরেণ্য অভিনয়শিল্পী ও সাংসদ দীর্ঘদিনের অচেতন অবস্থা কাটিয়ে কথা বলছেন। চোখ মেলে তাকাচ্ছেন। চিকিৎসকেরা তাঁর অবস্থার এমন উন্নতি দেখে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) থেকে কেবিনে স্থানান্তর করেছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ফারুকের স্ত্রী ও সন্তান দুজনেই তা নিশ্চিত করেছেন।

ফারুকের ছেলে শরৎ বলেন, ‘পরশু রাতেই বাবাকে আইসিইউ থেকে কেবিনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়। তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি খুবই ধীরগতিতে হচ্ছে। চিকিৎসকেরাও জানিয়েছেন, বাবা শারীরিক ডেভেলপমেন্ট ধীরগতিতে হবে। যে অবস্থায় গিয়ে ঠেকেছিল বাবার শারীরিক কন্ডিশন, আমরা তো ঘাবড়ে গিয়েছিলাম। আল্লাহর অশেষ রহমত ও চিকিৎসকদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় বাবা এখন উন্নতির দিকে। আলহামদুলিল্লাহ।’

এক মাসের বেশি সময় ধরে কথা বলতে পারেননি নায়ক ও সাংসদ আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে অচেতন ছিলেন তিনি। এ সময় প্রতিটি দিন কেঁদে কেঁদে বুক ভাসিয়েছেন তাঁর স্ত্রী ফারহানা পাঠান। সৃষ্টিকর্তার কাছে স্বামীর সুস্থতার জন্য প্রতিনিয়ত প্রার্থনা করেছেন। ২৭ এপ্রিল বিকেলে যখন স্বামী চোখ মেলে তাকান, কথা বলেন। তখন আবেগে নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি ফারুকের স্ত্রী ফারহানা, হাউমাউ করে কেঁদে ফেলেন।

Check Also

ভক্তদের মধুর বিড়ম্বনায় শুটিং করতে গিয়ে পলাশ

‌‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ ধারাবাহিক নাটকে ‘কাবিলা’ চরিত্র দিয়ে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছেন অভিনেতা জিয়াউল হক পলাশ। পরিচালক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
www.jagrotojanata.com want to
Show notifications for the latest News&Updates